জানুয়ারির শুরুতে ফের বৃষ্টির সম্ভাবনা

প্রজন্ম ডেস্ক

পৌষের শুরু থেকেই দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ। দীর্ঘ সময় ধরে দেখা মিলছে না সূর্যের দেখা। তীব্র শীত ও ঘন কুয়াশায় জনজীবন অনেকটাই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধদের ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

দেশের উত্তরাঞ্চলের জেলা পঞ্চগড়, রংপুর, ঠাকুরগাঁও, লালমনিরহাট, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, নীলফামারীসহ বেশ কয়েকটি জেলায় শীত বেশ দাপট দেখাচ্ছে।

এসব জেলায় গত ১১ দিনে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ থেকে ৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠা-নামা করছে। এছাড়া ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬ থেকে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠা-নামা করছে।

শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে কক্সবাজারে ২৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়া ৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গত বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) রাত থেকে শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) ভোর পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, খুলনা ও যশোরসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গুঁড়ি গুঁড়ি থেকে হালকা বৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আবারও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিচ্ছে আবহাওয়া অফিস। অফিস বলছে, দেশের রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে।

দিনের তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে। এছাড়া নতুন বছরের শুরুতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আবারও হালকা বৃষ্টি হতে পারে। এতে শীতের তীব্রতা বাড়তে পারে।

আবহাওয়াবিদ একেএম নাজমুল হক গণমাধ্যমকে বলেন, শনিবার থেকে রাতের তাপমাত্রা কিছুটা কমবে। দিনের মাত্রা কিছুটা বাড়বে। এদিন দেশের উপর দিয়ে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। তাপমাত্রা ওঠা-নামা করতে পারে। এছাড়া জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের শেষ দিকে আবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সে সময় তাপমাত্রা আরও কমতে পারে।

শুক্রবার সন্ধ্যার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় হালকা অথবা

গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শুক্রবার রাত থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে।

পঞ্চগড়, দিনাজপুর ও নীলফামারী অঞ্চলের উপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে ও বিস্তার লাভ করতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা (১-২) ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে এবং

দিনের তাপমাত্রা (১-২) ডিগ্রি সেলসিয়াস বৃদ্ধি পেতে পারে। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় রাতের তাপমাত্রা আরও হ্রাস পেতে পারে। বর্ধিত ৫ দিনে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

মন্তব্য