বাংলাদেশ পাকিস্তানে গেলে ভারতের বিপদ!

প্রজন্ম ডেস্ক

বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফর নিয়ে ধোঁয়াশা এখনো কাটেনি। বিসিবি বলছে, পাকিস্তানে শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে চায় বাংলাদেশ। অন্যদিকে পিসিবি বলছে, তাদের দেশে পূর্ণাঙ্গ সিরিজই খেলতে হবে।

সূচি অনুযায়ী জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলার কথা বাংলাদেশের। কিন্তু এখনো পাকিস্তানে যাওয়ার ব্যাপারে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি বিসিবি।

বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমকে জানান, আপাতত সরকারি সবুজসংকেত পাওয়া সাপেক্ষে পাকিস্তানে শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে চায় বাংলাদেশ। তবে টি-টোয়েন্টি খেলতেও কিছু তারকা ক্রিকেটারের আপত্তি আছে বলে জানান তিনি।

টি-টোয়েন্টি পাকিস্তানে খেলে টেস্ট নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার প্রস্তাবও পিসিবিকে দিয়ে রেখেছে বিসিবি। তবে কদিন আগে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শেষে পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি জানান, পাকিস্তানের সব ‘হোম’ সিরিজ এখন থেকে পাকিস্তানেই হবে।

এরই মধ্যে এবার পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার রশিদ খান বলছেন, বাংলাদেশ যদি পাকিস্তান সফরে যায় তাহলে নাকি বিপদে পড়বে ভারত। যে কারণে ভারতও চাইবে না বাংলাদেশ পাকিস্তানে গিয়ে টেস্ট খেলুক।

পাকিস্তানের এক সংবাদমাধ্যমকে রশিদ বলেন, ‘বাংলাদেশ টেস্ট খেলতে পাকিস্তানে এলে সমস্যায় পড়বে ভারত। কারণ ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ জয়ের বড় সুযোগ থাকবে পাকিস্তানের। আর এই জয় টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভারত ও পাকিস্তানের পয়েন্টের ব্যবধান কমিয়ে আনবে, যা ভারত চাইবে না। আমি মনে করি, এখানে আইসিসির হস্তক্ষেপ করা উচিত এবং অবশ্যই সিরিজটা হওয়া উচিত।’

আরেক সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার ওয়াসিম বারি বলছেন, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে পয়েন্ট হারানোর ভয়ে বাংলাদেশ পাকিস্তানে যেতে চায় না।

‘আমি বুঝতে পারছি না, কেন পাকিস্তানে আসতে দ্বিধা করছে বাংলাদেশ। কারণ টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে তারা গুরুতত্বপূর্ণ পয়েন্ট হারাবে। আমি আশা করছি তারা পাকিস্তান সফরে আসবে। কারণ এমসিসি এবং বিভিন্ন দল পাকিস্তান সফরে আসার পরিকল্পনা করেছে’- বলেন পাকিস্তানের সাবেক উইকেটকিপার।

মন্তব্য