বিনা পয়সায় বাংলাদেশি শ্রমিক নেবে মালয়েশিয়া

প্রজন্ম ডেস্ক

 বাংলাদেশ থেকে বিনা পয়সায় শ্রমিক নেবে মালয়েশিয়া। এ জন্য ঢাকার সঙ্গে কুয়ালালামপুরের আলোচনা অনেক দূর এগিয়েছে বলে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসিগারান।

মঙ্গলবার কুলাসিগারানের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে মালয়েশিয়া ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মালয় মেইল।

মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসিগারান বলেছেন, বাংলাদেশের সাথে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। নতুন চুক্তির শর্তগুলি নেপালের কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে যে চুক্তি হয়েছে তার অনুরূপ চুক্তি হবে বাংলাদেশের সঙ্গে।

এই চুক্তি সম্পন্ন হলে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যেতে কোনো খরচ লাগবে না। শ্রমিক নিয়োগের সার্ভিস চার্জ, বিমান ভাড়া, ভিসা ফি, স্বাস্থ্য পরীক্ষা, নিরাপত্তা ব্যয়সহ অন্যান্য ব্যয় বহন করবে নিয়োগদানকারী প্রতিষ্ঠান।

কুলাসিগারান জানান, ২০০৮ সালে মালয়েশিয়া সরকার বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেয়া বন্ধ করেছিল। বিষয়টি নিয়ে দুই দেশের সরকার একাধিকবার আলোচনা করেছে। আলোচনায় ইতিবাচক ফলাফলও এসেছে।

চলতি জানুয়ারি মাসের মধ্যেই মালয়েশিয়ার একটি প্রতিনিধি দল ঢাকা আসবে। তারা বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে বিনা খরচে শ্রমিক নেয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করবেন।

কুলাসিগারান বলেন, কিছু আলোচনার বিষয় রয়েছে। সেগুলো সম্পন্ন করতে হবে। বাংলাদেশ সেগুলো সমাধান করলে শ্রমিক নেয়া শুরু হবে। এজন্য মালয়েশিয়া সরকার প্রস্তুত।

এদিকে বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ রোববার জানিয়েছেন, ব্যয় ও স্বচ্ছতা ব্যবস্থার সমাধান হওয়ার আগে সরকার মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠাবে না। একদিনের ব্যবধানে ৭ জানুয়ারি সোমবার বাংলাদেশ থেকে বিনা খরচে শ্রমিক নেওয়ার বার্তা দিলেন দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার জন্য ২০১৭ সালে সুযোগ দেয় সরকার সরকার। এটা শেষ হয় ২০১৮ সালের ৩০ আগস্ট। এতে বৈধ হওয়ার সুযোগ পেয়ে বহু বাংলাদেশি নিবন্ধিত হয়েও প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

এরপর ২০১৯ সালের ১ আগস্ট থেকে অবৈধ অভিবাসীদের নিজ দেশে ফিরতে সরকার ‘ব্যাক ফর গুড’ কর্মসূচি চালু করে। আর এ কর্মসূচি শেষ হয়েছে গত ৩১ ডিসেম্বর।

মন্তব্য