‘ফখরুল,মোশাররফ,মওদুদ পারলে আমি কেন পারবো না’- কাদের

প্রজন্ম ডেস্ক

আসন্ন দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের প্রচারণায় দলের প্রার্থীর হয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ। তাহলে আমি কেন আওয়ামী লীগের হয়ে প্রচারণা চালাতে পারব না? এটা কি লেভেল প্লেইং ফিল্ড হলো? এটা ইসির কাছে জানতে চাই বলে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় সড়ক ও জনপথ অধিদফতরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি এবং সংস্কারকাজ উদ্বোধন শেষে আলোচনাসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি মহাসচিব প্রচারণা করতে পারবেন কিন্তু আমি পারবো না। ইসির আচরণ বিধি আমরা পালন করবো। আমি আচরণ বিধি মেনে চলছি। যেহেতু আচরণ বিধি হয়ে গেছে তাই মানতে হবে।

উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিয়ে বিতর্ক আছে বলে দাবি করেন সরকারের এই মন্ত্রী।

ভারতের নির্বাচনের উদাহরণ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারতের বিধানসভা নির্বাচনে তাদের প্রধানমন্ত্রীও নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে পারেন, অথচ আমরা তা পারি না।

এতসবের পরও সিটি নির্বাচনে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলবেন অঙ্গীকার করে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমরা তার পরও বলব– নির্বাচন কমিশনের দেয়া আচরণবিধি আমরা পালন করব। আমি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এ আচরণবিধি সম্পূর্ণভাবে মেনে চলছি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় সাম্প্রদায়িকতা প্রধান অন্তরায়। আর এর পৃষ্ঠপোষক হিসেবে কাজ করছে বিএনপি। সাম্প্রদায়িকতার এই বিষবৃক্ষের মূলোৎপাটন করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সোনার বাংলা গড়ে তোলাই আমাদের মূল লক্ষ্য।’

উল্লেখ্য, ৩০ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে আজ থেকে শুরু হয়েছে প্রচার। এবারই প্রথম দুই সিটির প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে ইভিএম (ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন) পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ হবে।

মন্তব্য