পাকিস্তানে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণ গণনা উদ্বোধন

মহাক্ষণের প্রতীক্ষায় আর মাত্র ৬৪ দিন

প্রজন্ম ডেস্ক

পাকিস্তানের ইসলামাবাদে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের ক্ষণ গণনার উদ্বোধন করা হয়েছে।

একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর্যের সঙ্গে পালন করা হয়েছে। শনিবার হাইকমিশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, এ উপলক্ষে হাইকমিশনের চ্যান্সারি ভবনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী ও অন্যান্য অতিথি অংশ নেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন হাইকমিশনার ও হাইকমিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয়।

অনুষ্ঠানের আলোচনা পর্বে হাইকমিশনার তারিক আহসান হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীর ক্ষণ গণনার বর্ণাঢ্য উদ্বোধনের সঙ্গে মিল রেখে ইসলামাবাদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসও ক্ষণ গণনার প্রতীকী উদ্বোধন করছে।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবাসন দিবস থেকে ক্ষণ গণনা শুরু- এ বিষয়টি ইসলামাবাদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের জন্য বিশেষভাবে তাৎপর্যপূর্ণ। কেননা মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের বিজয়ের পর সসম্মানে ইসলামাবাদ থেকেই বঙ্গবন্ধু স্বদেশের উদ্দেশে রওনা হন।

শেষে জাতির পিতা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি, অগ্রগতি ও কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয় এবং জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণ গণনা ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত একটি প্রামাণ্য ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

এদিকে, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থিত সব হাইকমিশন ও কনস্যুলেট অফিসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনের ক্ষণ গণনার উদ্বোধন এবং স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর্যের সঙ্গে পালন করা হয়েছে।

মন্তব্য