সাজেশন দিতে এসে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ

সাজেশন দিতে এসে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ

প্রজন্ম ডেস্ক

এবার ধর্ষণের শিকার হলেন রংপুরের মিঠাপুকুরের তিলকপুরের এক কলেজছাত্রী। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নন স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার ওসিসিতে রাখা হয়েছে।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যায় সাজেশন দেয়ার কথা বলে ওই কলেজছাত্রীর বাড়িতে যান তার পাশের বাড়ির কারমাইকেল কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থী। এ সময় ছাত্রীটির চা বিক্রেতা বাবা স্বপন মিয়া মাসহ চায়ের দোকানে দোকানদারি করছিলেন।

এই সুযোগে ওই কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় জাকির। এতে প্রচুর রক্তক্ষরণ হলে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় কলেজছাত্রীটিকে রাত ১০টার দিকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে অপারেশন শেষে তাকে এখন নন স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে রাখা হয়েছে। তার অবস্থা এখন আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। এ ঘটনায় উপযুক্ত বিচার দাবি করেছেন মেয়েটির বাবা।

ধর্ষিতার বাবা স্বপন মিয়া জানান, আমি এর উপযুক্ত বিচার দাবি করছি যাতে আর কোনো বাবা এ ধরণের পরিস্থিতির মুখে না পড়েন।

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাক্তার ফরিদুল ইসলাম জানান, মিঠাপুকুর থেকে আসা ওই নির্যাতিতাকে প্রথমে পোস্ট অপারেটিভ ওয়ার্ডে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা শেষে অবজারভেশন করে এখন নন স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার ওসিসিতে রাখা হয়েছে। আরো বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে।

মন্তব্য